চলুন দেখে নেই ফিউচার উইন্ডোস ১০ আপডেট । কি কি থাকতে পারে এই আপডেট এ ।

গত ১০ এপ্রিল অফিশিয়ালি  রিলিজ হওয়া কথা ছিলো উইন্ডোস এর নতুন আপডেট উইন্ডোজ ১০ স্প্রিং ক্রিয়েটরস আপডেট বিল্ড ১৮০৪। কিন্তু বিষেশ কিছু নতুন ফিচার যোগ করার কারনে কিছুটা বেশি সময় নিতে পারে মাইক্রোসফট। তবে নতুন আপডেট এ অবশ্যই এমন কিছু আপডেট থাকবে যা হয়ত আপনাকে মুগ্ধ করবেই । তাই কিছুটা বেশি সময় নিচ্ছে । চলুন দেখে আসা যাক কি কি থাকতে যাচ্ছে নতুন এই আপডেট এ ।

সকল তথ্য নেট থেকে সংগ্রহ করা । তাই কিছুটা কম বেশি হলে প্রযুক্তি টীম দায়ী নয়।

 

যদিও অনেকদিন যাবত উইন্ডোজ ইনসাইডার প্রোগ্রামের আওতায় বেটা টেস্টাররা এই আপডেট ব্যবহার করে আসছেন। তো চলুন দেখে নিই নতুন কী আকর্ষণ নিয়ে নিয়ে আসছে উইন্ডোজ ১০ স্প্রিং ক্রিয়েটরস আপডেট। বর্তমানে উইন্ডোজে মাল্টিটাস্কিং বাটন (উইন্ডোজ কি + ট্যাব) চাপলে শুধুমাত্র এই মুহূর্তে চালু থাকা টাস্ক বা প্রোগ্রামগুলো দেখা যায়। কিন্তু নতুন টাইমলাইন ফিচারটি দিয়ে আপনি বিগত দিনগুলোতে ব্যবহৃত প্রোগ্রাম, ব্রাউজার ট্যাব ইত্যাদির লিস্ট দেখতে পারবেন এবং এই টাইমলাইনটি আপনার মাইক্রোসফট একাউন্টের সাথে সিঙ্ক্রোনাইজ করবে। ফলে আপনি যেকোনো ডিভাইস থেকে ঐ অবস্থার কাজ আবার শুরু করতে পারবেন।
নিয়ার শেয়ার
আপনি যদি একই সাথে ম্যাক এবং আইফোন ব্যবহারকারী হয় থাকেন তাহলে অ্যাপলের এয়ারড্রপ ফিচারটি নিশ্চই ব্যবহার করেছেন। নিয়ার শেয়ার ফিচারটি এয়ারড্রপ এর অনুকরণেই তৈরি। এই ফিচারের মাধ্যমে ভিন্ন দুটি উইন্ডোজ ডিভাইসের মধ্যে খুব দ্রুত এবং সহজে ডেটা, ছবি ইত্যাদি সেন্ড ও রিসিভ করা যাবে।
ডায়াগনস্টিক ডেটা ভিউ অন্য সব সফটওয়্যার সার্ভিসের মতই উইন্ডোজ আপনার কাছ থেকে কিছু ডেটা কালেক্ট করে। মূলত তাদের সফটওয়্যার সেবা উন্নয়নের জন্য গবেষণা করার জন্যই এইসব ডেটা কালেক্ট করা হয়। অবশ্য আপনি চাইলে এইসব ডায়াগনস্টিক ডেটা কালেকশন অফও করে রাখতে পারবেন। আগের ভার্সনগুলোতে ডায়াগনস্টিক ডেটা আপনি না দেখতে পেলেও এই ভার্সনে কি টাইপের ডেটা উইন্ডোজ আপনার কাছ থেকে কালেক্ট করছে তা প্লেইন টেক্সট হিসেবেই দেখতে পারবেন।
আপডেটের জন্য ব্যান্ডউইডথ লিমিটেড করা উইন্ডোজ ১০ এর একটি বৈশিষ্ট্য হল এটি অটোম্যাটিক্যালি ব্যাকগ্রাউন্ডেই আপডেট ডাউনলোড করে নেয়। পারফরমেন্স ও সিকিউরিটির জন্য এটা খুব ভালো ফিচার হলেও আপনি যদি লিমিটেড ডেটা ইউজার হন তাহলে এটা আপনাকে বিপদে ফেলবেই। কিন্তু স্প্রিং ক্রিয়েটরস আপডেট আপনাকে এই ঝামেলা থেকে মুক্তি দিবে। এই ভার্সনে আপনি ব্যাকগ্রাউন্ড আপডেট এর জন্য আপনি নির্দিষ্ট পরিমাণ ব্যান্ডউইথ বরাদ্দ করে রাখতে পারবেন যাতে বাকি ব্যান্ডউইডথ দিয়ে আপনার প্রয়োজনীয় কাজ চালাতে পারেন।

520 total views, 8 views today

Comments

So empty here ... leave a comment!

Leave a Reply

Sidebar